এবার ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে দেবে টুইটার

ইলন মাস্ক টুইটারের মালিকানা গ্রহণের পর থেকে আলোচনা সমালচোনা পিছুই ছারছে না সামাজিক যোগাযোগ মাথ্যম তথা মাইক্রবøগিং সাইট টুইটারের। বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মান প্রতিষ্ঠান টেসলার কর্নধর ইলন মাস্ক ২০২২ সালের শেষের দিকে অনেক নাটকীয়তা শেষে ৪৪ বিলিয়ন ডলার দিয়ে টুইটার কিনে নেন, এর পর থেকে ইলন মাস্ক টুইটারকে সংস্কারের ঘোষনা দেন। এরই ধারাবাহীকতায় টুইটার থেকে ১৫০ কোটি স্প্যাম বা ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে ফেলার ঘোষনা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার। বিগত এক বছর যে সকল এ্যাকাউন্টে লগইন করা হয় নি এমন প্রায় ১৫০ কোটি ভুয়া বা স্প্যাম এ্যাকাউন্ট মুছে দেবার ঘোষনা দিয়েছে টুইটার, এ সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ভিত্তিক জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম প্রথম আলো। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে দেবার কারণে টুইটার ব্যাবহারকারীদের অনুসারির সংখা কমে যেতে পারে এতে টুইটার ব্যাবহারকারীদের উদ্বিগ্ন হবার কোন কারণ নেই এটি কোন প্রযুক্তিগত সমস্যাও নয় ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে দেবার কারণেই তাদের অনুসারির সংখ্যা কমে যাতে পারে।

ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে দেবার কারণে টুইটারে সকিৃয় ব্যাবহারকারীর সংখা কমবে না বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। টুইটারের এমন পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিযেছেন প্রযুক্তিবিদগণ। তাদের মতে টুইটারের ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে দেবার ফলে সবার কাছে টুইটারের গ্রহন যোগ্যতা আগের যে কোন সময়ের থেকে অনেক বেড়ে যাবে এতে করে মানুষ টুইটার ব্যাবহারের প্রতি আকৃষ্ট হবে এবং টুইটারে আরও নতুন ব্যাবহারকারী যুক্ত হবে। এতে করে টুইটার বর্তমানে যে লোকসানের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে সে অবস্থারও অবসান হতে পারে। কারণ টুইটারে যদি সকিৃয় ব্যাবহারকারীর সংখা বৃদ্ধি পায় তাহলে বিজ্ঞাপনদাতা প্রতিষ্ঠানগুল টুইটারে বিজ্ঞাপন দিতে আগ্রহী হবে। ইলন মাস্ক টুইটার ক্রয় করার পর বেশ কিছু বিতর্কিত পদক্ষেপ গ্রহন করেন সে কারণে অনেক বড় বড় বিজ্ঞাপন দাতা প্রতিষ্ঠান টুইটারে বিজ্ঞাপন প্রদান সাময়িক স্থগিত রাখে এতে করে টুইটারের আয়ে বড় ধাক্কা লাগে এবং টুইটারের শেয়ারের দাম বে কিছুটা কমে যায়।

বিষেশজ্ঞরা আরও মনে করে ইলন মাস্ক টুইটারের এই দুরাবস্থা কাটাতেই এমন পদক্ষেপ গ্রহন করে থাকতে পারেন। তার এ পদক্ষেপ বিজ্ঞাপন দাতা ব্রান্ডগুলকে টুইটারে বিজ্ঞাপন দিতে আকৃষ্ট করবে। তবে ভিন্য ধারণাও পোষন করেন অনেক প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ তাদের তে ইলন মাস্ক গ্রহণ যোগ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারকে একটি বিতর্কিত সামাজিক যোগাযোগ মাধমে পরিণত করেছেন। টুইটারের সাবেক মালিক পক্ষ যাদের টুইটার থেকে নিশিদ্ধ করেছিল ইলন মাস্ক তাদের পুনরায় এ্যাকাউন্ট পিরিয়ে দেবার ঘোষনা দিয়েছেন। এতে করে টুইটারের প্রতি মানুষের বিরাগ সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়াও মাসিক ৯ ডলারের বিনিময়ে টুইটারের বøু ব্যাচ ভেরিফিকেশন সেবা চালু করার পর টুইটারে ভুয়া এ্যাকাউন্ট খোলার হিরিক পরে যায়। এতে করেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারের ভাবমূতির্ খুুন্য হয়। এসকল কারণে বর্তমানে টুইটারের ইতিহাসের সব থেকে খারাব সময় অতিক্রম করছে মাইক্র বøগিং সাইট টুইটার। এসকল কারনে টুইটারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইলন মাস্কের এই ভুয়া এ্যাকাউন্ট মুছে দিয়ে টুইটারের হারানো ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতে বিফল হবেন বলে তারা মনে করেন। প্রিয় পাঠক আপনি কি মনে করেন, ইলন মাস্ক কি টুইটারের হারানো ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনতে পারবে। আপনার মতামত অবশ্যই মন্তব্য করে আমাদের জানাবেন এবং আপনি কি বিষয়ে জানতে চান সেটাও মন্তব্য করে জানাতে ভুলবেন না আপনার চাহিদা অনুযায়ি আমরা নিবন্ধ প্রকাশ করার চেষ্ট করব। সবাই ভাল থাকবেন নিরাপদে থাকবেন, আর যদি এখনও করণা ভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণ না করে থাকেন তাহলে অবশ্যই অতি দ্রæত করণা ভাইরাসের ভ্যাকসিন গাহণ করবেন। লেখাটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *