ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখালেই আর হবে না টাকা উপার্জন

আজকের সময়ে চাকুরি পাওয়াটা খুব কঠিন বিশেষ করে সরকারি চাকুরি পাওয়া। একারণে যুবকেরা অনলাইন থেকে টাকা উপার্জনের জন্য ফেইসবুক পেইজ খুলছেন। কেওবা ইউটিউব চ্যানেল খুলছেন। শূধূ ইউটিউব চ্যানেল খুললেই টাকা উপার্জন করা যায় না সেজন্য প্রয়জন হয় ইউটিউব চ্যানেলে মনিটাইজেশন চালু করা। ইউটিউবের নতুন নিতীমালা অনুযায়ি মনিটাইজেশন চালু নেই এমন ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিওতেও বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে ইউটিউব তবে সেই চ্যানেলের মালিক বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের বিনিময়ে কোন টাকা পাবেন না ত্বতক্ষন যতক্ষন না তার চ্যানেলে মনিটাইজেশন চালু হচ্ছে। অনেক ইউটিউবার আছেন যারা অনেক উচ্চ মানের ভিডিও বানিয়ে থাকেন তবুও তাদের মনিটাইজেশন আবেদন বাতিল করে দেয় ইউটিউব কারণ ইউটিউবের মনিটাইজেশন পেতে হলে ইউটিউবের নিতীমালা মেনে চলতে হবে যথা: কোন প্রকার মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করা যাবে না। সহিংসতা ছড়ায় এমন কোন ভিডিও আপলোড করা যাবে না। ফটো ¯øাইড শো আপলোড করা যাবে না। নিজের চেহারা এবং কন্ঠ ছারা গেইমিং ভিডিও আপলো করা যাবে না। অন্য কারও ভিডিও নিজের চ্যানেলে আপলোড করা যাবে না। এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে ইউটিউবের পার্টনারশিপ প্রগ্রাম পলিসি এবং নিতীমালা ভাল ভাবে পড়ে নেবেন। ইউটিউবের সকল নিয়ম যথাযথ ভাবে মেনে কাজ করলে অবশ্যই ইউটিউব চ্যানেলে মনিটাইজেশন চালু করতে পারবেন

মোট কথায় আপনি যদি পুরোপুরি সৎ ভাবে কাজ করেন তাহলে অবশ্যই আপনি এস সময় ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করতে সক্ষম হবেনই। অনেক ইউটিউব চ্যানেল এমন আছে যাদের চ্যানেলে মনিটাইজেশন চালু আছে কিন্তু তারা তুলনামূলক কম উপার্জন করেন। কারণ তাদের ভিডিওতে ভিউ খুব কম হয়ফলে তাদের উপার্জনও কম হয় এই সমস্যা সমাধানে ভিডিওর কোয়ালিটির দিকে নজর দেয়া প্রয়জন। ভিডিওর কোয়ালিটি বলতে আমরা অনেকেই ভিডিওর রেজুলেশন বুঝি, শুধু হাই রেজুলেশনের ভিজিও হলেই সেই ভিডিওকে হাই কোয়ালিটি ভিডিও বলা যায় না। হাই কোয়ালিটি ভিডিও বলতে এমন ভিডিওকে বোঝায় যে ভিডিও দর্শককে ভিডিওতে ধরে রাখতে সক্ষম, এবং যে ভিডিওতে প্রকৃতপক্ষে দর্শক উপকৃত হয় এমন মেটারিয়ালস আছে।

আপনার কন্টেন্ট যদি বিনোদনমূলক হয় তাহলে খেয়াল রাখতে হবে আপনার ভিডিওতে যেন অশ্লিল দৃশ্য কিংবা অশ্লিল সংলাপ না থাকে, ইউটিউবে ভিডিও বানানো শুরু করার আগে অবশ্যই ইউটিউবের কমিউনিটি গাইডলাইনটি খুব ভালো ভাবে পড়ে নেবেন এবং যদি কোন পয়েন্ট বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে মন্তব্য করে জানাবেন আমরা যথাসাদ্ধ চেষ্টা করব আপনাকে সহায়তা করার। ভিডিও বানানো সময় খেয়াল রাখবেন আপনার ভিডিওর স্কিৃপ্ট যেন অন্য কোথাও থেকে সংগ্রহীত না হয় আপনার ভিডিও শুধুমাত্র আপনার সৃষ্ট হতে হবে, অনেক ভিডিও নির্মাতা আছেন যারা বিভিন্য ওয়েবসাইট থেকে আর্টিকেল দিয়েই নিজের ভিডিওর স্কিৃপ্ট বানিয়ে থাকে যেমন আমাদের সাইটের কোন লেখা অডিওতে রুপান্তর করে তার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করে দেয় তাহলে সেই ভিডিও নির্মাতা তার চ্যানেলে মনিটাইজেশন পাবেন না আর যদি কোন ক্রমে পেয়েও থাকে তবে গুগল বিষয়টি সনাক্ত করার সাথে সাথেই তার চ্যানেলের মনিটাইজেশন বন্ধ করে দেবে। তাহলে একটু ভেবে দেখুন তো আপনি যে এত কষ্ট করে ভিডিও বানালেন দিন শেষে আপনার লাভটা কি হল। এজন্য সম্পুর্ণ নিজের শেধা দিয়ে ভিডিও বানানোর চেষ্ট করবেন, তাহলে আশা করা যায় আপনি অবশ্যই সফল হবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *